ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৭ রবিউস সানি ১৪৪২

বাজেট

আধুনিক নারায়ণগঞ্জ গড়ার লক্ষ্যে ৭৫৫ কোটি টাকার বাজেট আইভীর

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১১ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৩, ২০২০
আধুনিক নারায়ণগঞ্জ গড়ার লক্ষ্যে ৭৫৫ কোটি টাকার বাজেট আইভীর

নারায়ণগঞ্জ: নতুন করে কোনো কর আরোপ ছাড়াই নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) ২০২০-২১ অর্থ বছরের ৭৫৫ কোটি ৭৩ লাখ ৪৩ হাজার ১৪৪ টাকার বাজেট ঘোষণা করেছেন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ২০২০-২০২১ অর্থ বছরের বাজেট ঘোষণা করা হয়।

করোনার কারণে এবার সুধী সমাবেশ না করে আলী আহাম্মদ চুনকা পাঠাগার মিলনায়তনে এ বাজেট অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বাজেটে রাজস্ব ও উন্নয়নখাতে ৬৫৮ কোটি ৬৬ লাখ পাঁচ হাজার ২৪৩ টাকা আয় এবং ৬৫১ কোটি ১৭ লাখ ৫৩ হাজার ৬৫৪ টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে। বাজেটে উদ্বৃত্ত থাকবে সাত কোটি ৪৮ লাখ ৫১ হাজার ৫৮৯ টাকা।

মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী জানান, নারায়ণগঞ্জবাসীর ট্যাক্সের টাকায় দেওভোগ জিমখানায় শেখ রাসেল নগর পার্ক হচ্ছে। এখানে সরকারের অনুদান খুবই কম। মানুষের জন্য কাজ করতে গেলে জেলা প্রশাসক জায়গা দেয় না। রাজউক অনেক জায়গা দখল করে আছে। উপরন্তু মামলা চলাকালে তারা জমি বিক্রি করে দিয়েছে। শহরের যত্রতত্র পরিবহন স্ট্যান্ড গড়ে উঠেছে। সুইপারদের জন্য ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে আধুনিক কলোনি হবে। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নির্মাণাধীন বহুতল ভবনে নারায়ণগঞ্জ ইতিহাস সংরক্ষণে যাদুঘর তৈরি করা হবে। বার্থ, ডেথ সার্টিফিকেট, ট্রেড লাইসেন্স অনলাইনের মাধ্যমে করার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। বিসিক খাল পর্যায়ক্রমে উদ্ধার করবো। সিদ্ধিরগঞ্জের লেকের উপর সাতটি ব্রিজ সাত বীর শ্রেষ্ঠের নামে করা হবে।

এবারের বাজেটে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের উন্নয়নকেই প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। শহরের বাবুরাইল খালকে আধুনিকায়ন, বিভিন্ন এলাকার রাস্তা ও ড্রেনের উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া সিটি করপোরেশেনের বেশ কয়েকটি ওয়ার্ডে স্বাস্থ্য সেবার উন্নতিকরণ, মাঠ ও জলাধার সংরক্ষণকেও গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া এবারের বাজেটে সেতু, কালভার্ট নির্মাণ ও পুনঃনির্মাণ, দারিদ্র্য বিমোচন, তথ্যপ্রযুক্তি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যানজট নিরসন, জলাবদ্ধতা দূরীকরণ, বর্জ্য ব্যবস্থাপনার সংস্কার, খেলাধুলার মানোন্নয়ন ও রাস্তার বাতি স্থাপনে বিশেষ বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

এদিকে, এডিবি, সিজিপি, এমজিএসপি, এডিপি প্রকল্প সহায়তার মাধ্যমে অবকাঠামো নির্মাণ ও পুনঃনির্মাণ, পরিবেশ সংরক্ষণ এবং সিটি করপোরেশনের আওতাধীন খালগুলো খননের মাধ্যমে জলাশয় সংরক্ষণে বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

এর আগে ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের বাজেট ছিল ৮৭০ কোটি ৩৯ লাখ ৭৭ হাজার ৭৬ টাকা। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৭১৫ কোটি ৫১ লাখ ২১ হাজার ৩৭৭ টাকা বাজেট ঘোষণা করা হয়েছিল।

২০১১ সালের ৩০ অক্টোবর সিটি করপোরেশন নির্বাচন হওয়ার পর ২০১২ সালে প্রথমবারের মতো বাজেট ঘোষণা করেছিলেন মেয়র আইভী। ওই বছরের ২৫ জুন প্রথম পূর্ণাঙ্গ বাজেট ঘোষণা করেন তিনি। ওই বাজেট ছিল ৩০৭ কোটি টাকার। এরপর ২০১৩-২০১৪ অর্থবছরে নাসিকের বাজেট ছিল ৪০৩ কোটি ৯২ লাখ ৮৬ হাজার ৩৭৬ টাকা। ২০১৪-২০১৫ অর্থবছরে বাজেটের পরিমাণ ছিল ৪২৪ কোটি ৪ লাখ ৬৯ হাজার ৫১২ টাকা। ২০১৫-২০১৬ অর্থবছরে বাজেট ছিল ৪৮৮ কোটি ৯০ লাখ ৮৪ হাজার ৬১৭ টাকার। ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে বাজেটের পরিমাণ ছিল ৬০১ কোটি ২০ লাখ ২৯ হাজার ৭৯১ টাকার। ২০১৬ সালের ২২ ডিসেম্বর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দ্বিতীয় মেয়াদে বিজয়ী হওয়ার পর নাসিকের ষষ্ঠ বাজেট ঘোষণা করেন মেয়র আইভী। ২০১৭ সালের ২৩ জুলাই ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরে ৬৬৩ কোটি ৬৭ লাখ ৪৩ হাজার ৬২৫ টাকা ঘোষণা করেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১১ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৩, ২০২০
আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa