ঢাকা, বুধবার, ৬ মাঘ ১৪২৭, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ০৬ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ক্রিকেট

ক্রাইস্টচার্চে সেনা তত্ত্বাবধানে পাকিস্তান ক্রিকেট দল

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১১৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০২০
ক্রাইস্টচার্চে সেনা তত্ত্বাবধানে পাকিস্তান ক্রিকেট দল ছবি: সংগৃহীত

টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট সিরিজ খেলতে নিউজিল্যান্ড সফরে গেছে পাকিস্তান ক্রিকেট দল। সেখানে পৌঁছানোর পর ক্রাইস্টচার্চে সফরকারীদের বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন শুরু হয়েছে।

তবে অবাক করা ব্যাপার হচ্ছে, পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা কোয়ারেন্টিন যথাযথভাবে পালন নিশ্চিতের জন্য সেখানে সেনা তত্ত্বাবধানের ব্যবস্থা করেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড।

এই ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের রোমহর্ষক অভিজ্ঞতার কথা কারো অজানা নয়। ২০১৯ সালের ১৫ মার্চ (শুক্রবার) জুমার নামাজ চলাকালীন সময়ে এখানকার আল নূর মসজিদ এবং লিনউড ইসলামিক সেন্টারে এক বন্দুকধারীর নির্বিচার গুলিতে প্রাণ হারিয়েছিলেন প্রায় ৫০ জন ও আহত হন  কমপক্ষে ৫০ জন। সেদিন অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান তামিম-মুশফিকরা। বর্তমানে সেখানে অবস্থান করছে পাকিস্তান ক্রিকেট দল।  

'ক্রিকেট পাকিস্তান ডটকম'-এর খবরে বলা হয়েছে, ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনের সময়টা পুরো পাকিস্তান দল সেনা তত্ত্বাবধানে থাকবে, নিউজিল্যান্ডের সরকার ঘোষিত কোভিড-১৯ এর জন্য যেসব নিয়ম-নীতি আরোপ করা হয়েছে, সবগুলো যেন পাকিস্তান দলের সদস্যরা যথাযথভাবে পালন করতে পারেন তা নিশ্চিতের জন্যই তাদের সেনা তদারকির মধ্যে রাখা হয়েছে।

ক্রাইস্টচার্চে পুরো পাকিস্তান দল প্রথমে ৩ দিন আইসোলেশনে থাকবে। এই সময়ের মধ্যে কোভিড-১৯ পরীক্ষায় পজিটিভ প্রমাণিত হলে তাকে দল থেকে আলাদা করে ফেলা হবে। কোয়ারেন্টিনের বাকি সময় পাকিস্তানের দলের সদস্যদের বিভিন্ন গ্রুপে ভাগ করে ফেলা হবে। প্রতিটি গ্রুপ তাদের জন্য নির্ধারিত এরিয়ায় থাকবে। এই সময়ে কোনোভাবেই এক গ্রুপের ক্রিকেটারেরা অন্য গ্রুপের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন না।

প্রথম তিনদিন খেলোয়াড়রা তাদের হোটেল রুমের বেলকনিতে অনুশীলন করতে পারবেন। পুরো দল ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে সংযুক্ত থাকবে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ কিংবা জুম ভিডিও কলের মাধ্যমে। আইসোলেশন শেষে লিঙ্কন ইউনিভার্সিটির নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট হাই পারফরম্যান্স সেন্টারের মাঠেই অনুশীলন করবে পাকিস্তান ক্রিকেট দল। তবে সেটা হতে হবে নিধারিত গ্রুপে গ্রুপে এবং তাদের জন্য নির্ধারিত জায়গায়।  

সফররত পাকিস্তান দলকে ভাগ করা হয়েছে মোট চারটি গ্রুপে। পিকে-১, পিকে-২, পিকে-৩, পিকে-৪- এই চার গ্রুপে ভাগ হয়ে কোয়ারেন্টিন পালন করবেন পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। অনুশীলনও চলবে একসঙ্গে।

১৮ ডিসেম্বর থেকে নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে পাকিস্তানের তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু হওয়ার কথা। বাকি দুই ম্যাচ হবে ২০ ও ২২ ডিসেম্বর। এরপর দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ শুরু হবে ২৬ ডিসেম্বর থেকে।  

বাংলাদেশ সময়: ২১১৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০২০
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad
Alexa