ঢাকা, রবিবার, ৯ কার্তিক ১৪২৭, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

শিক্ষা

করোনায় শিক্ষা কার্যক্রম ডিজিটালাইজড করার সুযোগ এসেছে

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৩৫৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৬, ২০২০
করোনায় শিক্ষা কার্যক্রম ডিজিটালাইজড করার সুযোগ এসেছে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি): করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হলেও শিক্ষা কার্যক্রমকে ডিজিটালাইজড করার সুযোগ এসেছে বলে মনে করেন শিক্ষা সংশ্লিষ্টরা।
বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবার) রাতে ঢাবির সেন্টার ফর জেনোসাইড স্টাডিজর আয়োজিত 'কোভিড-১৯ মহামারি এবং উচ্চশিক্ষার আধুনিকায়ন' শীর্ষক ওয়েবিনারে বক্তরা এসব কথা বলেন।

 
সেন্টারের পরিচালক পরিচালক অধ্যাপক ড. ইমতিয়াজ আহমেদের সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাবির উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. মাকসুদ কামাল।  
মূল বক্তা ছিলেন ঢাবির কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি (সিএসই) বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ হোসেন খান। আলোচক ছিলেন 'এটুআই'র পলিসি এ্যাডভাইজার অনির চৌধুরী।

অধ্যাপক মাকসুদ কামাল বলেন, করোনা আমাদের দূর্বলতা বোঝার জন্য ও ডিজিটালাইজড হতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রেখেছে। তাই শিক্ষা কার্যক্রমকে আধুনিকায়ন করতে করোনা মহামারি পরবর্তীতেও স্বল্প পরিসরে কিছু কিছু ক্লাস অনলাইনে নেওয়ার চেষ্টা করব। এজন্য একটা ডেটা সেন্টার করতে হবে। আমাদেরকে প্রযুক্তিগতভাবে আরো সমৃদ্ধ হতে হবে।  
 
অনির চৌধুরী বলেন, করোনা মহামারির মাধ্যমে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রশাসনিক ও একাডেমিক সব ধরনের কাজ ডিজিটালাইজড করার সুযোগ এসেছে। এটা আমাদের গ্রহণ করতে হবে। এক্ষেত্রে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন বড় ভূমিকা পালন করতে পারে।
 
আসিফ হোসেন খান বলেন, অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম বাস্তবায়ন করলে শিক্ষা ব্যয় অনেক বেড়ে যাবে যা দরিদ্র পরিবার গুলোর পক্ষে মেটানো সম্ভব না। ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমে যাবে। এক্ষেত্রে সরকার ও বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে আসতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৬, ২০২০
এসকেবি/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa