ঢাকা, শনিবার, ৯ কার্তিক ১৪২৭, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বিনোদন

দক্ষিণ এশিয়ায় সংকুচিত হচ্ছে ডব্লুবি ও এইচবিও চ্যানেল

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০২০
দক্ষিণ এশিয়ায় সংকুচিত হচ্ছে ডব্লুবি ও এইচবিও চ্যানেল ডব্লুবি ও এইচবিও চ্যানেলের লোগো

ডিসেম্বরের ১৫ তারিখ থেকে দক্ষিণ এশিয়ার কোটি কোটি দর্শক জনপ্রিয় চ্যানেল এইচবিও এবং ডব্লুবি (ওয়ার্নার ব্রাদার্স) মুভি চ্যানেল দেখতে পাবেন না। ওয়ার্নার মিডিয়ার পক্ষ থেকে শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) এই সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছে।

 

এশিয়ার মধ্যে ভারত ও পাকিস্তানেই সম্প্রচার বন্ধ করা হচ্ছে দু’টি চ্যানেলের। তবে বাংলাদেশের সিনেমাপ্রেমীদের জন্য একটু স্বস্তির খবর হলো, এইচবিও চ্যানেলটির সম্প্রচার বাংলাদেশে অব্যাহত থাকবে। মলদ্বীপ ও বাংলাদেশ থেকে গুটিয়ে নেওয়া হবে শুধু ডব্লুবি চ্যানেলটি। তবে ছোটদের চ্যানেল কার্টুন নেটওয়র্ক এবং পোগোর সম্প্রচার বন্ধ হচ্ছে না। বরং নতুন দেশীয় কনটেন্ট দিয়ে এই দুই চ্যানেল ঢেলে সাজানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।  

ঠিক কী কারণে ওয়ার্নার মিডিয়া ভারত থেকে দু’টি জনপ্রিয় চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ করছে, তা স্পষ্ট করা হয়নি। মহামারির জন্য আর্থিক ক্ষতি একটি কারণ হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে। মনে করা হচ্ছে ‘পে পার চ্যানেল’ বন্দোবস্তের পর থেকেই এ দেশে ক্ষতির মুখে পড়েছিল সংশ্লিষ্ট চ্যানেলগুলি।  

আলোচনায় উঠে আসছে আরও একটি দিক। সংস্থাটির ভিডিও স্ট্রিমিং সার্ভিস এইচবিও ম্যাক্স লঞ্চ করা হবে আমেরিকায়। এটি ভারতেও লঞ্চ করার পরিকল্পনা রয়েছে। সেই কারণেই হয়তো এইচবিও, ডব্লুবি চ্যানেল দু’টি তুলে নেওয়া হচ্ছে।  

সংস্থার পক্ষ থেকে জেরহার্ড জেইলারের বক্তব্য, আন্তর্জাতিক বাজার দখল করতে গেলে এশিয়া প্যাসিফিকে নিজেদের দাপট বজায় রাখতে হবে। ভারতের বাজার নিয়ে আমাদের যে প্রত্যাশা ছিল, তা পূরণ হয়নি। সেই কারণেই এইচবিও ম্যাক্সের ভাবনা।

চ্যানেল কর্তৃপক্ষ যা-ই বলুন না কেন, ভারতীয় দর্শকের একাংশের কাছে এইচবিও একটি নস্ট্যালজিয়ার নাম। সেই চ্যানেল বন্ধ হওয়া মানে বিনোদনে বড় একটা ফাঁকি পড়ে যাওয়া।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০২০
এমকেআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa