ঢাকা, রবিবার, ৪ মাঘ ১৪২৭, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

তথ্যপ্রযুক্তি

‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে নেতৃত্ব দিতে হবে আমাদের মতো করে’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২০
‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে নেতৃত্ব দিতে হবে আমাদের মতো করে’ ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার , ফাইল ফটো

ঢাকা: ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লব সবার জন্য এক নয়। উন্নত ও বৃদ্ধ জনগোষ্ঠীর দেশের চাইতে উন্নয়নশীল ও কর্মক্ষম জনগোষ্ঠীর দেশ হিসেবে আমাদের মতো করে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে নেতৃত্ব দিতে হবে।

এ বিপ্লবে আমরা উন্নত দেশগুলোকে হুবহু অনুকরণ করতে পারবো না। আর তাতে আমাদের বাণিজ্য সংগঠনগুলোকে নেতৃত্ব দিতে হবে। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহারে আমাদের বিশাল জনসম্পদকে কাজে লাগানোর উপযোগী হতে হবে।

শনিবার (২৮ নভেম্বর) ঢাকায় ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে বেসিসের ওয়েবসাইট ও মোবাইল অ্যাপ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব বলেন।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, উন্নত দেশগুলো তাদের জনসম্পদের ঘাটতি পূরণের জন্য তাদের উপযোগী প্রযুক্তি ব্যবহার নিয়ে যা ভাবছে আমাদের ক্ষেত্রে তা প্রযোজ্য হতে পারে না। এর লাগসই ব্যবহার নিশ্চিত করার মাধ্যমেই আমাদের বিশাল জনসম্পদকে কাজে লাগাতে হবে। চালকবিহীন গাড়ি কিংবা কর্মীবিহীন গার্মেন্টস শিল্প গড়ে তোলার ভাবনা উন্নত দেশের জন্য কল্যাণকর হলেও আমাদের ভাবতে হবে বিশাল জনশক্তিকে কীভাবে কর্মক্ষম রাখা যায়।  

তিনি ডিজিটাল শিল্প সম্পৃক্ত ব্যবসায় সংগঠনগুলোকে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব সম্পৃক্ত প্রযুক্তির বিকাশ ও প্রয়োগে টেকসই কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়নে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

বেসিসের সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবিরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বেসিস নেতা এস এম কামাল, হাবিবুল্লাহ করিম, সারোয়ার আলম ও ফারহানা রহমান, বিসিএস সভাপতি শহীদ মনির এবং বাক্কো সভাপতি ওয়াহেদ শরীফ বক্তব্য রাখেন।

সাবেক বেসিস ও বিসিএস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার বলেন, করোনা মহামারি যেমনি দেখতে পেয়েছি তেমনি করোনা দেখিয়ে দিয়েছে ডিজিটালাইজেশনের প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি।

মন্ত্রী বলেন, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, রোবটিক্স, আইওটি কিংবা বিগডাটা এনালাইসিসের মাধ্যমে জাপান, চীন ও দক্ষিণ কোরিয়া করোনাকে অনেকটাই আয়ত্তে আনতে সক্ষম হয়েছে। প্রযুক্তি ব্যবহারের বিষয়টি আমাদের গুরুত্ব দিয়ে দেখতে হবে।

তিনি বলেন, ২০১৮ সালে তথ্যপ্রযুক্তি নীতিমালা আমরা করেছি, এখন ডিজিটাল প্রযুক্তি নীতিমালা তৈরির সময় হয়েছে।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে প্রযুক্তি নিয়ে উন্নত বিশ্ব যেভাবে ভাবছে আমাদের সেভাবে চিন্তা করলে চলবে না। আমাদের ভাবতে হবে আমাদের মতো করে। কোনো অবস্থাতেই চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের প্রযুক্তিকে অবজ্ঞা করলে চলবে না।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে এবং দূরদৃষ্টিসম্পন্ন কর্মসূচির ফলে ডিজিটাল বিপ্লবে বিশ্বে বাংলাদেশ দৃষ্টান্ত স্থাপন করার পাশাপাশি চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে নেতৃত্বের যোগ্যতায় উপনীত হয়েছে। গত ১১ বছরে এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ অগ্রগতির অগ্রযাত্রায় মাইলফলক স্থাপন করেছে।  

মন্ত্রী বেসিসের আধুনিক ভার্সনের ওয়েবসাইট ও মোবাইল অ্যাপ প্রযুক্তি সম্পৃক্তদের জন্য খুবই কার্যকর একটি উদ্যোগ উল্লেখ করে ডিজিটাল প্রযুক্তিখাতের অন্য ট্রেডবডিসমূহকে অনুরূপ ওয়েবসাইট তৈরির প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

বেসিস ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সংগঠনটির শতকরা ৯০ শতাংশ কাজ অটোমেশনের আওতায় আসবে। সদস্যরা লগইন করে নিজ নিজ প্রোফাইল আপডেট করতে পারবেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২০
এমআইএইচ/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa