ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৭ রবিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

দৌলতপুরে ২ বোনের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪১ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০২০
দৌলতপুরে ২ বোনের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার প্রতীকী ছবি

কুষ্টিয়া: কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে এক ঘণ্টা ব্যবধানে দুই বোনের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তারা দু’জন সম্পর্কে চাচাতো বোন।

 

শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) দুপুর ১২টা থেকে ১টার মধ্যে উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের কামারপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।  

নিহতরা হলেন- ওই এলাকার মুনতাজ আলীর মেয়ে রুমা খাতুন (২৫) এবং তার চাচাতো বোন মোয়াজ্জেম হোসেনের মেয়ে মুক্তা খাতুন (১৬)।

আড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান সাঈদ আন্সারী বিপ্লব বাংলানিউজকে জানান, মুক্তা গত চার মাস আগের একটি ধর্ষণ মামলায় সহযোগী অভিযোগে আসামি ছিল। তারপর থেকেই সে তার চাচাতো বোন রুমার স্বামীর বাড়িতে পলাতক ছিল। কয়দিন আগেই সে বাড়িতে আসে। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে মুক্তার ঘরে ঝুলন্ত মরদেহ দেখে স্থানীয়রা থানায় খবর দেয়। এর মধ্যে মুক্তার মৃত্যুর খবর শুনে রুমাও নিজ ঘরের আত্মহত্যা করেন।  

তিনি জানান, মুক্তা ধর্ষণ মামলার আসামি হওয়ার কারণে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে এমনটা করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
  
দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহুরুল হক বাংলানিউজকে জানান, খবর পেয়ে দু’জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য বিকেলে মরদেহ দু’টি কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে ঘটনাটি আত্মহত্যা না হত্যা তা এখনই বলা যাচ্ছে না। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০২০
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa