ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

আটকে পড়া কাতার প্রবাসীদের ফিরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৫১ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০২০
আটকে পড়া কাতার প্রবাসীদের ফিরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ

ঢাকা: বাংলাদেশে আটকে পড়া কাতার প্রবাসীদের ফিরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ করেছেন দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন।  

কাতারের রাজধানী দোহায় কাতারের প্রশাসনিক উন্নয়ন, শ্রম ও সমাজ বিষয়কমন্ত্রী ইউসুফ মোহাম্মদ আল ওথমান ফাকরুর সঙ্গে এক আনুষ্ঠানিক বৈঠকে তিনি এ অনুরোধ করেন।

শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র এ তথ্য জানায়।

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত কাতারের সামগ্রিক উন্নয়নে বাংলাদেশের কর্মীদের অবদানের কথা তুলে ধরেন। বাংলাদেশি কর্মীদের স্পন্সরশিপ পরিবর্তনের বিভিন্ন দিক নিয়ে কাতারের মন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেন। তিনি বাংলাদেশের কর্মীরা যাতে সহজে নিয়োগকর্তা পরিবর্তন করতে পারে সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় সহায়তা দেওয়ার জন্য মন্ত্রীকে অনুরোধ জানান।

মন্ত্রী বাংলাদেশি কর্মীদের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং স্পন্সরশিপ পরিবর্তনের বিষয়ে সম্ভাব্য সব প্রকার সহায়তা দেওয়ার আশ্বাস দেন।

এছাড়া রাষ্ট্রদূত কাতারে অবস্থানরত অনেক পরিবারের উপার্জনশীল সদস্য, ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন কোম্পানিতে কর্মরত বাংলাদেশি কর্মী যারা করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পূর্ববর্তী সময়ে ছুটিসহ বিভিন্ন কারণে বাংলাদেশে গিয়ে আটকে পড়েছেন, তাদের এক্সসেপশনাল এন্ট্রি পারমিট দিয়ে দ্রুততম সময়ে পুনরায় কাতার যাওয়ার সুযোগ দেওয়ার বিষয়ে মন্ত্রীর সঙ্গে বিস্তারিত আলোচনা করেন। এ সময়ে রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশে আটকে পড়া প্রবাসী বাংলাদেশি যারা দূতাবাসে আবেদন করেছেন তাদের একটি তালিকা মন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করেন। কাতারের মন্ত্রী এ ব্যাপারেও প্রয়োজনীয় সহায়তার আশ্বাস দেন।

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত প্রবাসী কর্মীদের কল্যাণে কাতার সরকার গৃহীত বিভিন্ন সংস্কারমূলক (ওয়েজ প্রটেকশন সিস্টেম, ডিসপিউট সেটেলমেন্ট সিস্টেম, ‍স্পন্সরশিপ পরিবর্তন ইত্যাদি) কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং বাংলাদেশের কর্মীরা যাতে সংস্কারের কাক্ষ্মিত সুফল পেতে পারে এ বিষয়ে আলাপ-আলোচনা করেন। শ্রম মন্ত্রণালয়ের সংস্কার কার্যক্রম সংক্রান্ত বিভিন্ন সেবা বাংলা ভাষায় দেওয়ার বিষয়েও বিস্তারিত আলোচনা হয়। মন্ত্রী বিভিন্ন সচেতনতামূলক কার্যক্রমে অন্যান্য ভাষার পাশাপাশি বাংলা ভাষায় লিফলেট প্রস্তুতের প্রস্তাবকে স্বাগত জানান।

বৈঠকে অন্যান্য বিষয়ের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে পেশাদার ও দক্ষকর্মী নিয়োগ, ইতিবাচক কাজে যুক্ত প্রবাসী বাংলাদেশিদের স্বীকৃতি এবং যেসব কর্মী বাংলাদেশ ও কাতারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করে তাদের আইনের আওতায় আনার ব্যাপারে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। এছাড়া, বাংলাদেশি কর্মীদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনার জন্য কাতারের শ্রম মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে একটি ফলোআপ সভার প্রস্তাব করা হলে তা নিশ্চিত করা হয়। রাষ্ট্রদূত কাতারের মন্ত্রীকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণের কথা জানালে তিনি সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফর করবেন বলে জানান।

বাংলাদেশ সময়: ২২৪৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০২০
টিআর/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa